Admission Notice – 2021 – 22

Admission Open for Academic Year 2021 – 22


Admission Notice (Bengali Version – pdf format)

Apply Online

                                        রামকৃষ্ণ মঠ বিবেকানন্দ বেদ বিদ্যালয়

                                       ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ছাত্র ভর্তির বিজ্ঞপ্তি


১) www.rkmveda.org – এই ওয়েবসাইটে প্রদত্ত আবেদনপত্র অনুযায়ী online আবেদন করতে হবে।
২) আবেদন করার শেষ তারিখ : ৩১ই আগস্ট ২০২১ ।
৩) মাধ্যমিক পরীক্ষার প্রতি বিষয়ের প্রাপ্ত নম্বর এবং গড় নম্বর আবেদনপত্রের সঙ্গে জানাতে হবে।
৪) ভর্তির জন্য লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।
৫) লিখিত পরীক্ষার জন্য স্থান, তারিখ ও সময় পরে আমাদের ওয়েবসাইটে জানানো হবে।
৬) লিখিত পরীক্ষার বিষয় – ইংরেজি (ব্যাকরণ, অনুবাদ ও অশুদ্ধি-সংশোধন) এবং সংস্কৃত (কারক বিভক্তি, শব্দরূপ ও ধাতুরূপ, সন্ধি, সমাস, প্রত্যয় ও অনুবাদ)।
৭) লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ছাত্রদের প্রয়োজন-বোধে মৌখিক পরীক্ষায় ডাকা হবে।
৮) লিখিত পরীক্ষার সম্ভাব্য সময় – সেপ্টেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহ। Covid পরিস্থিতি বিবেচনা করে পরীক্ষার স্থান, তারিখ ও সময় আমাদের ওয়েবসাইটে পরে জানানো হবে।
৯) আবেদনকারী ছাত্রের মাধ্যমিক পরীক্ষার অরিজিনাল মার্কশিট – এর ছবি এই (8273162190) whatsapp  নম্বরে পাঠাতে হবে।
১০) আসন সংখ্যা সীমিত হওয়ায় ছাত্রদের যথাশীঘ্র আবেদন করতে হবে।
১১) বিদ্যালয়ের ঠিকানা : বিবেকানন্দ বেদ বিদ্যালয়, বেলুড় মঠ, হাওড়া, ৭১১ ২০২(বেলুড় মঠ ফেরিঘাটের দক্ষিণ দিকে)। মোবাইল নম্বর – 8273162190।
১২) ভর্তির জন্য যোগ্য ছাত্রদের বেদ বিদ্যালয়ে যোগদানের তারিখ যথাসময়ে ওয়েবসাইটে জানানো হবে।
১৩) Online ফর্ম ফিলাপ মোবাইলের মাধ্যমেও করা যাবে।
ক) www.rkmveda.org – এই ওয়েবসাইট ওপেন করতে হবে।
খ) তারপর ওয়েবসাইটটা খুললে উপরের দিকে Navigation বলে একটা অপশন থাকবে ওটা ক্লিক করতে হবে।
গ) ক্লিক করলে Admission অপশন আসবে এবং ক্লিক করতে হবে। ক্লিক করে Apply Online – এ ক্লিক করতে হবে। তারপর ফর্মটা ওপেন হলে সবগুলো পূরণ করে নিচে সাবমিট করে দিতে হবে।

Eligibility

Male candidates who have secured minimum 55% marks in aggregate at Secondary (10th) or equivalent exam in 2021 may apply.
Students who didn’t have Sanskrit in earlier classes may also apply.

যোগ্যতা

ছাত্রকে(Male only) ২০২১ সালে দশম শ্রেণিতে কমপক্ষে সার্বিক (aggregate) 55% নম্বর পেয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে। পূর্ব পূর্ব শ্রেণিতে পাঠ্য বিষয়ে সংস্কৃত না থাকলেও আবেদন করা যাবে।

Admission Process

Selection will be made largely based on the results in the final exams of Classes X.

Number of seats: around 15

নির্বাচিত ছাত্রেরা ছাত্রাবাসে আসার সময়ে যেসব প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি এবং নথিপত্র নিযে আসবে তার তালিকা নীচের লিংকে দেওয়া আছ।

List of things to bring by the selected students

Application

Please apply online.
No need to apply offline. While applying no fees/money is to be be paid towards selection process.
Last date for submitting application forms – 31st August, 2021

আবেদন প্রক্রিয়া

১) আবেদন করার শেষ তারিখ – 31st August, 2021
২) অন্ লাইন – www.rkmveda.org এই ওয়েবসাইট open then Admission > Apply Online থেকে পাঠানো যাবে।

Scholarship & Hostel

Veda Vidyalaya is residential school. Fees and charges are absolutely nil. All the expenses for food, clothing, boarding and educational, etc of the students are borne by Veda Vidyalaya.

Moreover, the needy and good students are supported financially till they complete their BA and MA in Sanskrit after successfully passing from Veda Vidyalaya.

After completing 12th Std at Veda Vidyalaya the students are eligible for admission to any college in India provided the courses of his choice are available. There are two separate institutes (1) Vivekananda University and (2) Vidyamandira in Belur Math itself for higher studies. They provide the courses in Sanskrit right from BA to Ph D. Both the institutes have hostel facilities as well.

আর্থিক অনুদান

১) একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেণিতে বিনা ব্যয়ে পড়াশোনা ও থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা বেদ বিদ্যালয় করে।
২) বিদ্যালয়ে অধ্যয়ন সমাপ্তির পর অন্যত্র সংস্কৃতে উচ্চ শিক্ষার জন্যও যোগ্য ছাত্রদের জন্য বেদ বিদ্যালয় থেকে অর্থসাহায্য করা হয়।

Curriculum

Salient features

Veda Vidyalaya provides courses at just Higher Secondary (11 and 12 Std) level. Hence, applications are invited from the student for admission to the 11th class.

Courses of National Institute of Open Schooling (NIOS) such as English, Computer (DEO), Sanskrit etc are offered to the students.

Main stress of Veda Vidyalaya is on Sanskrit studies. Hence, the students who are interested in making career in Sanskrit are expected to apply. Those who won’t study Sanskrit at college level need not apply.

We thoroughly train the students starting from scratch in writing Devanagari script, writing answers in Sanskrit and conversing in Sanskrit. Hence, if someone doesn’t know Sanskrit at all, need not worry. In fact, hardly anybody comes with proper Sanskrit background.

Due to the methodology of teaching-learning and curriculum adopted at Veda Vidyalaya our students find it extremely easy to study B A to Ph D courses in Sanskrit.

পাঠ্যক্রমের বৈশিষ্ট্য

১) দিল্লীর রাষ্ট্রিয় মুক্ত বিদ্যালয়ী শিক্ষা সংস্থান (NIOS)এর ইংরাজি, কম্পিউটার ইত্যাদি আধুনিক বিষয় থাকলেও সংস্কৃত বিশেষ-ভাবে পড়ানো হয়।
২) নুতন ছাত্রদের সংস্কৃতে কথোপকথন, লেখন ও সংস্কৃত বিষয়ে পরিচিত করার জন্য বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।
৩) বেদ বিদ্যালয়ের ছাত্র ভবিষ্যতে অন্যত্র বিভিন্ন মহাবিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পারে এবং অনায়াসে সংস্কৃত(অনার্স) পড়তে পারে।
৪) BA, MA, M Phil এবং Ph D পর্যন্ত পড়ার ব্যবস্থা বেলুড়েই বিবেকানন্দ বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিদ্যামন্দির নামক দুটি প্রতিষ্ঠানে আছে।

Research and Placement

Most of our students get jobs at various colleges in West Bengal through College Service Commission (CSC), Public Service Commission (PSC) etc.

UGC conducts NET exam twice a year. A student must qualify NET for getting the job at college level. While passing NET if a student gets certain higher percentage of marks he is awarded Junior Research Fellowship (JRF). If a student has JRF he gets around Rs.33,000/- per month for five year for doing research like M Phil and Ph D. While doing M Phil or Ph D he may keep trying to get job whenever opportunity presents.

From 2001 to June 2017, in all 105 students have pass out from Veda Vidyalaya. Out of them, 61 are doing higher studies, 28 are employed as Asst Professors in various colleges, 7 are employed as Asst Professors in various Universities, 1 is working as Govt PTT, 2 are working as school teachers.

Our students don’t seek direct employment immediately after Veda Vidyalaya for the reason that they think that if they complete the MA along with UGC-NET, they are sure to get Assist. Professors job, as that is the reality.

Scope of Employment in Sanskrit

Just an example is sufficient to show the scope of jobs in Sanskrit.

Example – In the years 2016 the college service commission (CSC) has filled up around 250 vacancies of Asst.Professors at college level  just for Sanskrit.

All over India, at the higher education level – there are around 17 Sanskrit Universities, 10 Sanskrit Academies and 15 Oriental Research Institutes.

120 regular universities have Sanskrit Depts and most of the colleges under them have Sanskrit Depts as well. 8 states have special Sanskrit Boards parallel to regular State Education Boards.

The job opportunities at school level are difficult sum up due to their enormity. Central Boards like CBSE, ICSE, Kendriya Vidyalaya Sangathan etc have Sanskrit subject at various levels.

In some reputed universities out of India, there are either Indology Depts, Sanskrit Depts, Dept of Oriental Studies or Dept of Asian Studies where there are quite a few Sanskrit jobs which may be explored as well.

The major but generally ignored and unexplored area of employment by Sanskrit students is UPSC-IAS, WBCS, SSC (Staff selection commission), Railway Recruitment Board, SSB (Service Selection Board – of Army), similar boards of Navy, Air Force and some such military and para-military units. If a student prepares for all these exams at proper time and with proper guidance, getting these jobs will become possible. Every year around 1000 post of IAS/IPS etc services are filled up through UPSC Civil Service Exams (CSE).

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *